• শুক্রবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৩:০০ পূর্বাহ্ন

প্রেমিকাকে পালিয়ে বিয়ে করতেই শিশু ফাতেহাকে অপহরণ-হত্যা

নিউজ ডেস্ক :
Update : বুধবার, ৪ অক্টোবর, ২০২৩

* আদালতে দুই আসামির ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুরে শিশু ফাতেহা হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার তার ফুফাতো ভাই লাজিম ও চাচাতো ভাই আলাউদ্দিন আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। জবানবন্দিতে তারা জানিয়েছে, প্রেমিকাকে পালিয়ে বিয়ের টাকা জোগাড় করতেই ফাতেহাকে অপহরণ করে তারা।

বুধবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট স্বাগত সৈম সৌম্যের আদালতে তারা জবানবন্দি দেন।

বাঞ্ছারামপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নুরে আলম এ তথ্য করেন।

জবানবন্দিতে ফুফাতো ভাই লাজিম ফাতেহাকে অপহরণ ও হত্যার কথা স্বীকার করেছে। সে জানায়, এক মেয়ের সঙ্গে তার প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে। ওই মেয়েকে নিয়ে পালিয়ে গিয়ে বিয়ের পরিকল্পনা করে সে। কিন্তু হাতে টাকা না থাকায় মামাতো বোন ফাতেহাকে অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায়ের পরিকল্পনা করে সে।

এ ঘটনার ৪-৫ দিন আগে লাজিম তার মামাতো ভাই আলাউদ্দিনের সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করে। আলাউদ্দিনকে কিছু টাকা দেওয়ার কথা বললে সে ফাতেহাকে অপহরণে রাজি হয়।

পরিকল্পনা অনুযায়ী, গত শনিবার সন্ধ্যার পর ফাতেহাকে বাড়ির পাশে চান্দল বিলের কাছে নিয়ে যাওয়া হয়। এ সময় আলাউদ্দিন তার পা ধরে রাখে এবং লাজিম তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করে। পরে বিলের কচুরিপানার নিচে তার লাশ লুকিয়ে রাখ হয়। এ ঘটনার দুদিন পর ‘কবিরাজ বাবা’ নামে ইমো নম্বর থেকে ৪ লাখ টাকা মুক্তিপণ চেয়ে শিশুটির মা রুবি আক্তারের ফোনে একটি বার্তা পাঠানো হয়।

আলাউদ্দিনও ঘটনার সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকার কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দেয়।

প্রসঙ্গত, বাঞ্ছারামপুর উপজেলার দরিয়াদৌলত ইউনিয়নের শুটকিকান্দি গ্রামের বাসেদ মিয়ার মেয়ে ফাতেহা গত শনিবার সন্ধ্যায় বাড়ি থেকে নিখোঁজ হয়। বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি করে তাকে না পেয়ে সোমবার সকালে থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন বাসেদ মিয়া।

একই দিন ‘কবিরাজ বাবা’ নামে ইমো নম্বর থেকে ৪ লাখ টাকা মুক্তিপণ চেয়ে শিশুটির মা রুবি আক্তারের ফোনে একটি বার্তা পাঠানো হয়। এর সূত্র ধরে পুলিশ তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় লাজিম ও আলাউদ্দিনকে আটক করে। জিজ্ঞাসাবাদে তারা ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেন। পরে তাদের দেখানো জায়গা থেকে সোমবার রাতে চান্দল বিলের কচুরিপানার নিচ থেকে ফাতেহার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।


More News Of This Category